গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল

গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি বিষয়ে একটি নতুন আপডেট পোস্ট নিয়ে আজকে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আজকের পোস্টটি মূলত গুচ্ছ ভর্তি পরিক্ষার একটি নতুন আপডেট সম্পর্কে যেটি কিছুক্ষণ আগেই প্রকাশিত হয়েছে। গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল কবে নাগাদ প্রকাশিত হতে পারে সেটি নিয়ে অনেকেই অনলাইনে খোঁজাখুঁজি করে থাকেন বা এ নিয়ে অনেকেই বিভিন্ন বিড়ম্বনায় রয়েছেন।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। আাদের পোস্টে গুচ্ছ পদ্ধতিতে আবেদনের প্রাথমিক ফলাফল উপস্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া চূড়ান্ত আবেদন কবে থেকে শুরু হবে এবং আবেদন ফি কত দিতে হবে সে সম্পর্কে সঠিক তথ্য উপস্থান করা হবে। তাই গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক রেজাল্ট পেতে পোস্টটি মনযোগ সহকারে লক্ষ করুন।

গুচ্ছ ভর্তি সিলেকশন রেজাল্ট ২০২১

গুচ্ছ ভর্তি সিলেকশন রেজাল্ট ২০২১। ২০ টি সাধারণ ও বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল রবিবার ২২ আগস্ট, ২০২১ এ প্রকাশিত হয়েছে। এর আগে এ বিষয়ে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্যদের একটি সভা অনুষ্ঠিত হয় এবং সেখানেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। অনলাইন ভিত্তিক এ সভায় সকল গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপচার্যরা উপস্থিত ছিলেন।

GST প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল

GST প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল। গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের জন্য মোট ৩ টি ইউনিটে ভাগ করা হয়েছে। এই ৩ ইউনিটের প্রার্থীগণ ২ ধাপে আবেদন করেই কেবল চূড়ান্তভাবে ভর্তির জন্য যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হবেন। প্রথম ধাপের আবেদন শুরু হয়েছিলো গত ১ এপ্রিল ২০২১ এ। প্রাথিমকভাবে আবেদনের এই রেজাল্ট আজকে ২২ আগস্ট রবিবার প্রকাশিত হয়। এ ফলাফল এসএসসি বা এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে প্রদান করা হয়।

ভর্তির নির্দেশিকা অনুসারে শিক্ষার্থীদের পছন্দের ক্রমানুসারে কমপক্ষে ৫ টি পরীক্ষাকেন্দ্র চয়েস করতে দেয়া হবে। এছাড়া আবেদনপ্রার্থী যদি কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যায়নরত থাকে তাহলে সেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম ও অধ্যায়নের বিষয় সংক্রান্ত তথ্যাদি দ্বারা আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

জিএসটি ভর্তি ফলাফল ২০২১

জিএসটি ভর্তি ফলাফল ২০২১। প্রাথমিক আবেদনে যারা নির্বাচিত হবেন শুধুমাত্র তাদেরকে এসএমএসের মাধ্যমে ফলাফল জানানো হবে। প্রাথমিকভাবে যারা সিলেক্ট হয় নি তাদেরকে কোন এসএমএস দেয়া হবে না এবং তারা ভর্তির জন্য উপযোগী নয়।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তির ফলাফল এর পরবর্তী ধাপে আগামি ১ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখ থেকে চূড়ান্ত আবেদন শুরু হবে। সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী চূড়ান্ত আবেদনের ফি বর্ধিত করে ১২শ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে ২২ আগস্ট রবিবার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। ঘোষণা অনুযায়ী ১২০০ টাকা পরিশোধ করে চুড়ান্ত নির্বাচিতদের আবেদন করতে হবে।

গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল

গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল। আপনি যদি গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক ফলাফল দেখতে চান তাহলে আমাদের পোস্টে দেয়া সকল দিকনির্দেশনা ফলো করুন। আমাদের পোস্টে এ বিষয়ে যাবতীয় তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে। আশা করি এখান থেকে আপনি সহজেই আপনার প্রাথমিক গুচ্ছ পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারবেন।

ফলাফল দেখতে এখানে প্রবেশ করুনঃ www.gstadmission.ac.bd

উপরোক্ত লিংকে প্রবেশ করার পর,
১. Preliminary Result অপশনে প্রবেশ করুন।
২. এবার আবেদনকারীর রোল নাম্বার নির্দিষ্ট বক্সে প্রদান করুন।
৩. এছাড়া যাবতীয় তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করুন এবং সাবমিট করুন।
৪. এবার আপনি যদি প্রাথমিকভাবে সিলেক্ট হয়ে থাকেন তাহলে আপনার রেজাল্ট সেখানে দেখা যাবে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল পিডিএফ (PDF) ডাউনলোড

আপনি চাইলে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল পিডিএফ আকারে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। আমাদের পোস্টে বিভিন্ন ইউনিটের ফলাফল আলাদাভাবে প্রকাশ করা হয়েছে। প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল পিডিএফ আকারে এখান থেকে ডাউনলোড করুন।

GST গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল

GST গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক আবেদনের ফলাফল। আপনি যদি নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজাল্ট আলদাভাবে দেখতে চান তাহলে সেই সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে বিজ্ঞপ্তি দেখে নিতে পারেন।

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলোঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধুডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানাভাশানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

শেষ কথাঃ আশা করি আপনাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সব আমাদের পোস্টের মাধ্যমে পেয়ে গেছেন। আমরা চেস্টা করেছি গুরুত্বপূর্ণ সকল তথ্য সহজভাবে আমাদের পোস্টে উপস্থাপন করার জন্য। এছাড়া এ বিষয়ে সর্বশেষ আপডেট তথ্য জানতে আমাদের সাথেই থাকুন।

Exit mobile version